চকচক করলেই গোল্ড লোন হয় না

আজকাল, তানিষ্ক এবং কল্যাণ জুয়েলার্সের মতো অনেক প্রতিষ্ঠান বিনামূল্যে gold valuation services দেয়। এতে আপনি একটি রসিদও পাবেন।

Reserve Bank of India তার gold loan পোর্টফোলিওতে অনিয়মের জন্য IIFL ফাইন্যান্সের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছে। তদন্তে দেখা গেছে যে কোম্পানির 67% গোল্ড লোন অ্যাকাউন্টে LTV রেশিও সম্পর্কিত অসঙ্গতি রয়েছে। Loan disbursing-এর সময় কোম্পানিটি সোনার দামে হেরফের করেছে বলেও দেখা গিয়েছে। এর পরিপ্রেক্ষিতেই IIFL ফাইন্যান্সকে নতুন গোল্ড লোন ইস্যু করতে নিষেধ করেছে RBI।

ভারতে ঋণগ্রহীতাদের জন্য গোল্ড লোন একটি জনপ্রিয় অপশন। এটি পাওয়া সহজ এবং ন্যূনতম ডকুমেন্টেশন প্রয়োজন। অনেক NBFC দোরগোড়ায় এসে গোল্ড লোন অফার করে, যা এগুলিকে আরও সহজলভ্য করে তুলেছে। গোল্ড লোন পাওয়ার প্রক্রিয়াটি সহজ। ঋণগ্রহীতা একটি ব্যাঙ্ক বা NBFC-এর কাছে যান এবং জামানত হিসেবে তাঁর সোনা বন্ধক রাখেন। ঋণদাতা তারপর সোনার দামের ভ্যালুয়েশন করে তার দামের 75% পর্যন্ত loan disburse করে।

লোন নেওয়ার আগে সোনার দাম নির্ধারণ করা গুরুত্বপূর্ণ। এটি আপনাকে নিশ্চিত করতে সাহায্য করবে যাতে আপনি ঋণদাতার কাছ থেকে একটি fair deal পান।

আজকাল, তানিষ্ক এবং কল্যাণ জুয়েলার্সের মতো অনেক প্রতিষ্ঠান বিনামূল্যে gold valuation services দেয়। এতে আপনি একটি রসিদও পাবেন।

যদি কোনও ফাইন্যান্স কোম্পানি কম দামে আপনার সোনার মূল্যায়ন করে, তাহলে সতর্ক থাকুন। ভাল করে বুঝে নিন যে এর প্রতারণামূলক উদ্দেশ্য থাকতে পারে। আপনি যদি এই ধরনের কোম্পানির কাছ থেকে লোন নেন তাহলে তারা সুদ এবং জরিমানার কারসাজি করতে পারে।

ব্যাঙ্ক এবং NBFC-এর গোল্ড লোনের সুদের হারের মধ্যে পার্থক্য রয়েছে। সরকারি ব্যাঙ্কগুলি 8.65% থেকে 11% হারে সোনার ঋণ অফার করে। যেখানে Axis এবং HDFC-এর মতো বেসরকারি ব্যাঙ্কগুলি বার্ষিক 17% চার্জ করে৷ অনেক NBFC 36% পর্যন্ত সুদের হার নেয়৷

একইভাবে, প্রসেসিং ফিতে একটি উল্লেখযোগ্য পার্থক্য রয়েছে। SBI এবং Canara Bank ঋণের পরিমাণের উপর 0.5% বা সর্বাধিক ₹5,000 পর্যন্ত প্রসেসিং ফি চার্জ করে। ইতিমধ্যে, NBFCগুলি 1% বা তারও বেশি প্রসেসিং ফি নেয়। আপনি যদি একটু হোমওয়ার্ক করেন তাহলেই আপনি প্রতি বছর সুদের উপর যথেষ্ট পরিমাণ সেভিংস করতে পারেন।

গোল্ড লোনের মেয়াদ সাধারণত তিন বছর পর্যন্ত থাকে। লোন পরিশোধের জন্য বেশ কিছু অপশন আছে। প্রথম অপশনে আপনাকে প্রতি মাসে সুদ দিতে হবে। আপনি শেষে মূল টাকা পরিশোধ করতে পারেন। দ্বিতীয় অপশনে, EMI গণনা করার জন্য সুদ এবং মূলধন একত্রিত করা হয়। আপনাকে প্রতি মাসে এটি দিতে হবে। কিছু গোল্ড লোন বুলেট পেমেন্ট অপশন অফার করে। যেমন, আপনি যদি 1 লক্ষ টাকা লোন নিয়ে থাকেন তাহলে বার্ষিক সুদের পরিমাণ হয় 10,000 টাকা। আপনি একবারে পুরো 1 লক্ষ 10 হাজার টাকা শোধ করতে পারেন এবং আপনার সোনা রিকভারি করতে পারেন। আপনি আপনার সুবিধা অনুযায়ী অপশন বেছে নিতে পারেন।

পার্সোনাল ফিনান্স এক্সপার্ট জিতেন্দ্র সোলাঙ্কির মতে, গোল্ড লোনের জন্য ঋণের পরিমাণ সবসময় সোনার দামের চেয়ে কম। যদি কোনও ফাইন্যান্স কোম্পানি আপনার সোনার ভ্যালুয়েশন কম করে তাহলে আপনি স্বাভাবিকভাবেই কম লোন পাবেন। কোনও বাধ্যবাধকতার কারণে আপনি তা পরিশোধ করতে না পারলে, আপনার সোনা নিলাম হয়ে যেতে পারে। এতে আপনার বড় ক্ষতি হবে। আপনি কোথা থেকে ঋণ নেবেন সেই সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে সোনার মূল্য নির্ধারণ, সুদের হার এবং প্রসেসিং ফি সম্পর্কে পুঙ্খানুপুঙ্খ গবেষণা করুন।

ব্যবসার লাভের কারণে বাজারে সোনার ঋণ প্রদানকারী ঋণদাতাদের আধিক্য রয়েছে। আপনার শুধুমাত্র RBI-নিয়ন্ত্রিত ব্যাঙ্ক বা ফিনান্স কোম্পানির কাছ থেকে গোল্ড লোন নেওয়া উচিত। আপনার লোন পরিশোধের ক্ষমতার উপর ভিত্তি করে ঋণের পরিমাণ এবং অপশন বেছে নিন।

Published: April 5, 2024, 13:44 IST

পার্সোনাল ফাইনান্স বিষয়ের সর্বশেষ আপডেটের জন্য ডাউনলোড করুন Money9 App