PPF: 5 তারিখের গুরুত্ব বুঝুন

5 তারিখের পরে বিনিয়োগ করার অর্থ হল আপনি লগ্নির উপর সুদ কম পাবেন এবং তাতে আপনার উপার্জন হ্রাস পাবে।

অনুজ পাবলিক প্রভিডেন্ট ফান্ড অর্থাৎ PPF-কে বিনিয়োগের জন্য সবচেয়ে বেশি বিশ্বাস করেন। এখানে লগ্নি করলে একদিকে গ্যারান্টেড রিটার্ন যেমন পাওয়া যায় তেমনই কর বাঁচানও যায়। তাই তিনি প্রতি বছর ফেব্রুয়ারির শেষে নিয়ম করে PPF অ্যাকাউন্টে দেড় লক্ষ টাকা জমা করেন। কিন্তু নির্দিষ্ট কোনও তারিখ বিবেচনা না করে এই খাতে বিনিয়োগ করে অনুজ একটি বড় ভুল করছেন। সেই কারণে তিনি তাঁর বিনিয়োগে কম সুদ পাচ্ছেন।

যারা PPF-এ বিনিয়োগ করছেন তাঁদের জন্য মাসের 5 তারিখ খুবই গুরুত্বপূর্ণ। 5 তারিখের পরে বিনিয়োগ করার অর্থ হল আপনি লগ্নির উপর সুদ কম পাবেন এবং তাতে আপনার উপার্জন হ্রাস পাবে।

নিশ্চিত রিটার্ন-সহ নিরাপদ লগ্নির জন্য PPF হল একটি অসাধারণ ক্ষুদ্র সঞ্চয় প্রকল্প। আয়কর আইনের 80C ধারার অধীনে আপনি বার্ষিক দেড় লক্ষ টাকা পর্যন্ত করছাড়ের সুবিধা পেতে পারেন। আপনি একটি PPF অ্যাকাউন্টে প্রতি বছর সর্বোচ্চ 1.5 লক্ষ টাকা পর্যন্ত বিনিয়োগ করতে পারেন। PPF অ্যাকাউন্টের মেয়াদ হল 15 বছর। মেয়াদ শেষের পর আপনি যে টাকা পাবেন তা সম্পূর্ণ করমুক্ত। বর্তমানে সরকার প্রতি তিন মাস অন্তর ক্ষুদ্র সঞ্চয় প্রকল্পের সুদের হার পর্যালোচনা করে থাকে। সম্প্রতি অন্য স্বল্প সঞ্চয় প্রকল্পগুলিতে সুদের হার বাড়লেও PPF-এ সুদের হারে কোনও পরিবর্তন হয়নি৷ বর্তমানে, PPF-এ সরকার 7.1% সুদ দিচ্ছে৷

এখন প্রশ্ন হল, পিপিএফ অ্যাকাউন্টে সুদ জমার নিয়ম কী এবং অনুজের মতো মানুষেরা কীভাবে ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছেন?
একটি PPF অ্যাকাউন্টে জমা টাকার পরিমাণের উপর সুদের গণনা মাসিক ভিত্তিতে করা হয়। তারপর আর্থিক বছরের শেষে মোট সুদ সেই অ্যাকাউন্টে জমা হয়। প্রতি মাসের 5 তারিখ পর্যন্ত জমা করা টাকার উপর সুদ গণনা করা হয়। সেই সুদ একবারে বছরের শেষে অ্যাকাউন্টে জমা হয়।

অনুজ মাসের 5 তারিখের পরে পিপিএফ অ্যাকাউন্টে টাকা জমা করেন, তাই তিনি সেই মাসের সুদ পান না। উদাহরণস্বরূপ, অনুজ যদি পয়লা ফেব্রুয়ারি PPF অ্যাকাউন্টে 20,000 টাকা জমা করেন এবং তারপর 8 তারিখ আরও 10,000 টাকা জমা করেন, তবে তিনি ফেব্রুয়ারি মাসের জন্য শুধুমাত্র 20,000 টাকার উপরে সুদ পাবেন। কিন্তু এই সমগ্র পরিমাণ যদি পয়লা থেকে 5ই ফেব্রুয়ারির মধ্যে জমা করা হত, তাহলে পুরো জমার উপর সুদ পাওয়া যেত।

অনুজ এভাবে টাকা জমা করলে কত টাকা হারাবেন, আসুন একটি অঙ্কের মাধ্যমে তা বুঝি। বর্তমানে, PPF-এ সুদের হার 7.1%। অর্থাৎ আপনি যদি বছরে দেড় লক্ষ লগ্নি করেন তাহলে এই হারে মোট 10,650 টাকা সুদ পাবেন। আর যদি মাসের 5 তারিখের পরে এই পরিমাণ জমা করা হয়, তাহলে আপনি 11 মাস সুদ পাবেন, সেক্ষেত্রে সুদের পরিমাণ হবে 9,762 টাকা। অর্থাৎ সামান্য কিছু পরিকল্পনার অভাবে এক বছরে তাঁর ক্ষতির পরিমাণ 888 টাকা।

এই পরিমাণটি প্রথম নজরে ছোট মনে হতে পারে, কিন্তু PPF হল ন্যূনতম 15 বছরের একটি পরিকল্পনা৷ এর উপর চক্রবৃদ্ধি সুদ লাগু হয়। তাহলে আপনি বুঝতে পারছেন অনুজ কত টাকা ক্ষতির সম্মুখিন হবে। PPF-এ সুদের উপরও সুদ জমা হয়। তাই এরকম ছোটখাটো অবহেলার কারণে অনুজের মতো মানুষেরা দীর্ঘ মেয়াদে বড় ক্ষতির সম্মুখিন হয়ে থাকেন।

আপনি PPF-এ নিয়মিত লগ্নি করলে অবশ্যই অনুজের মতো ভুল এড়িয়ে চলুন। চেষ্টা করুন মাসের 5 তারিখের মধ্যে বিনিয়োগ করার। আপনি যদি মাসিক কিস্তির মাধ্যমে লগ্নি করে থাকেন তাহলে প্রতিটি কিস্তি মাসের 5 তারিখের মধ্যে জমা দিন। তাহলে আপনি আপনি PPF-এ বিনিয়োগ করে অনেকটাই লাভ করতে পারবেন।

Published: March 19, 2024, 14:01 IST

পার্সোনাল ফাইনান্স বিষয়ের সর্বশেষ আপডেটের জন্য ডাউনলোড করুন Money9 App