নতুন বাড়ি কিনছেন, লোকেশন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ

আপনি যেখানেই একটি বাড়ি কিনুন না কেন, এর আশেপাশের কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয় অবশ্যই খুঁটিয়ে দেখুন।

ল্যাপটপে নতুন ফ্ল্যাট খুঁজতে গিয়ে অনিতা তাঁর বন্ধু অনিলকে ফোন করেন। তিনি অনিলের কাছ থেকে বেশ কিছু বিষয় স্পষ্ট করে জানতে চান। কারণ এই বিষয় নিয়ে তিনি খুব একটা স্বচ্ছ ধারণা করতে পারছেন না। অনিতা অনিলকে জানায় যে সে দুটি ফ্ল্যাট দেখেছে। প্রথমটি একটি হাউজিং সোসাইটিতে অবস্থিত। এতে যেমন রয়েছে প্রশস্ত রাস্তা তেমনই বাজার-স্কুল-কলেজ থেকেও এটি খুব একটা দূরে নয়।

আর অন্য ফ্ল্যাটটি সস্তা। কিন্তু তার আশেপাশে রয়েছে অনেক বস্তি। ফলে জায়গাটি খুবই ঘিঞ্জি। এই দুটির মধ্যে কোন ফ্ল্যাটটি বেছে নেবেন তা নিয়ে বিভ্রান্ত অনিতা।

অনিল তাঁকে সেই ফ্ল্যাটটি পছন্দ করতে বলেন যেটির অবস্থান ভাল। কারণ এতে পরববর্তীকালে দাম বৃদ্ধির সম্ভাবনা বেশি থাকে। অনিল তাঁকে বলেন যে প্রতিটি স্থানের বাড়ির মূল্য ভবিষ্যতে যে বাড়তে হবে এমনটা নয়। দাম বাড়ার জন্য বাড়ির আশেপাশে কিছু সুবিধা থাকা অপরিহার্য। এর কারণেই বাড়ির দাম বেড়ে যায়। অনিতা তখন অনিলকে জিজ্ঞেস করেন কী কী জিনিস বাড়ির দাম বাড়াতে পারে?

বিনিয়োগের উদ্দেশ্যে সম্পত্তি কিনবেন নাকি এতে বসবাস করবেন, সেটা আগে স্পষ্ট হওয়া প্রয়োজন। বেশিরভাগ মানুষই ফ্ল্যাট, জমি বা বাড়ি কেনার জন্য একটা বাজেট স্থির করে থাকেন। আপনার কত বাজেট হবে তা আপনার ব্যক্তিগত ব্যাপার। তবে বাজেটের জন্য ভবিষ্যৎ-এর সুবিধা উপেক্ষা করবেন না। আপনি যেখানেই একটি বাড়ি কিনুন না কেন, এর আশেপাশের কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয় অবশ্যই খুঁটিয়ে দেখুন। এটি শুধুমাত্র আপনার বসবাসকে সহজ করে তুলবে না, ভবিষ্যতে আপনি এটি বিক্রি করতে ভাল দামও পাবেন। এখন

আসুন এক এক করে সেই বিষয়গুলি সম্পর্কে জেনে নিই যেগুলি সম্পত্তি কেনার আগে অবশ্যই খতিয়ে দেখা উচিত।
বেশিরভাগ লোকেরা এমন সময়ে একটি বাড়ি কেনার সিদ্ধান্ত নেয় যখন তাঁরা বিয়ে করার বা সন্তানের জন্ম দেওয়ার পরিকল্পনা করেন। এই ধরনের লোকদের জন্য বাড়ির কাছে একটি ভাল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান অর্থাৎ স্কুল বা কলেজ থাকা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এমনকি ব্যবহারিক জীবনেও আপনি দেখতে পাবেন যে নামী প্রতিষ্ঠানের আশেপাশের এলাকাগুলি প্রায়শই কিছুটা ব্যয়বহুল হয়। এমন এলাকায় একটি বাড়ি

কেনা বা তৈরি করা অত্যন্ত উপকারী। পাশাপাশি, এই অঞ্চলগুলিতেও মোটা অঙ্কের ভাড়া থেকে আয়ের সুযোগ থাকে।
আপনি যে এলাকায় একটি বাড়ি খুঁজছেন সেখান থেকে শহরের অন্য এলাকার সঙ্গে যোগাযোগের সুবিধা অনেকটা কেকের উপর আইসিং-এর মতো। বাস, মেট্রো বা যে কোনও পাবলিক ট্রান্সপোর্টের মাধ্যমে শহরের বাকি অংশের সঙ্গে সংযুক্ত একটি এলাকায় অবস্থিত কোনও সম্পত্তি একটি প্রিমিয়াম সম্পত্তি হিসাবে বিবেচিত হয়। সর্বদা এমন একটি এলাকায় একটি বাড়ি কিনুন যেখানে পাবলিক ট্রান্সপোর্ট সহজেই পাওয়া যায় বা শীঘ্রই শহরের মূল কেন্দ্রে পৌঁছে যাওয়া যায়। গণপরিবহণ ব্যবস্থা ভাল না হলে আপনার সময় ও অর্থ দুটিই নষ্ট হবে।

বেশিরভাগ পরিবারে ছোট শিশু কিংবা বৃদ্ধ বাবা-মা থাকেন যাঁদের নিয়মিত চিকিৎসার পর্যবেক্ষণের প্রয়োজন। এমন পরিস্থিতিতে হাসপাতালের কাছাকাছি এমন এলাকায় একটি বাড়ি কেনা উচিত, যাতে সময়মতো চিকিৎসা পরিষেবা পাওয়া যায়।

এখন প্রশ্ন হল- বাড়ি বা জমি কেনার ক্ষেত্রে অবস্থান কতটা গুরুত্বপূর্ণ? এটা উপেক্ষা করলে কী অসুবিধা হতে পারে?
নগরায়নের যুগে স্থানীয় দোকান এবং মুদি দোকানের পরিবর্তে উচ্চমানের হাইপারমার্কেট উঠে আসছে। আশেপাশে শপিং মল এবং খুচরো দোকান রয়েছে এমন লোকেশন বা সোসাইটিগুলির চাহিদা অনেকটাই বেশি। এই জায়গায়, দোকান, ক্লিনিক এবং সমস্ত

প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র পাওয়া যায়। এমতাবস্থায় চাহিদা বেশি থাকায় সম্পত্তির দাম বেশি হওয়াটাই স্বাভাবিক।
বাড়ি কেনার সময় নিরাপত্তার বিষয়টিও খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আপনার সব প্রয়োজন মেটাতে পারে এমন একটি এলাকায় বাড়ি কেনার চেষ্টা করা উচিত। আপনার চারপাশে আপনার মত বেশি সংখ্যক মানুষ থাকলে আপনি নিরাপদ বোধ করবেন। আপনি নিশ্চিত হবেন যে আপনি যে এলাকায় বাড়ি কিনছেন তা বসবাসের জন্য নিরাপদ।

দ্বিতীয় প্রশ্ন হল কিভাবে একজন বাড়ির ক্রেতা সঠিক অবস্থান সনাক্ত করতে পারেন যাতে ভবিষ্যতে সম্পত্তির মূল্য বৃদ্ধি ভালো হয়?
সরকার পরিকাঠামো উন্নয়নের জন্য ক্রমাগত কাজ করে চলেছে। আপনি যদি এমন একটি অঞ্চলে একটি সম্পত্তি পান যেখানে উন্নয়ন এবং পরিকাঠামোগত অত্যাধুনিক প্রকল্প হওযার সম্ভাবনা বেশি, তবে তা কিনতে পারেন। কারণ, এতে ভবিষ্যতে আপনার সম্পত্তির মূল্য কয়েকগুণ বৃদ্ধি পাবে। বিশেষ করে ভবিষ্যতে যদি এসব এলাকায় অনেক সুযোগ-সুবিধা বা কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হয়।

একটি পুরানো সম্পত্তি যেমন একটি পুরানো বাড়ি বা ফ্ল্যাট কেনার সময়, অবশ্যই তার বয়স পরীক্ষা করুন। সম্পত্তির বয়স পরীক্ষা করতে আপনি একজন স্ট্রাকচারাল ইঞ্জিনিয়ারের সাহায্য নিতে পারেন। এ ছাড়া নির্মাণের মান সম্পর্কেও জেনে নিন।

একটি বাড়ি এমন কিছু নয় যা আপনি বারবার কিনতে, বিক্রি করতে বা তৈরি করতে পারেন। তাই বাড়ি কেনার সময় বাড়ির অবস্থান, সুযোগ-সুবিধা, পরিবহণ এবং নিরাপত্তার কথা মাথায় রাখুন। এই বৈশিষ্ট্যগুলি শুধুমাত্র আপনার সম্পত্তির পুনঃবিক্রয় মূল্য বৃদ্ধি করবে না তা আপনাকেও সারাজীবন নিশ্চিন্ত করবে। তাই অনিতার মতো আপনি যখনই একটি বাড়ি কেনার সিদ্ধান্ত নেবেন, তখন অবশ্যই এই প্রয়োজনীয় বিষয়গুলি দেখে নেবেন।

Published: March 19, 2024, 14:11 IST

পার্সোনাল ফাইনান্স বিষয়ের সর্বশেষ আপডেটের জন্য ডাউনলোড করুন Money9 App